পর্যটকদের পদচারণায় কানায় কানায় পূর্ণ সাগর তীর

সুজাউদ্দিন রুবেল :

ঈদের ছুটি শেষ হলেও এখনো শেষ হয়নি ঈদের আমেজ। আনন্দ আর হৈ-হুল্লোড়ে মুখরিত বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত শহর কক্সবাজার। গত দু’দিন ধরে যেন উৎসবে মাতোয়ারা সাগর তীর। বিপুল সংখ্যক পর্যটক আসায় দারুন খুশি পর্যটন সংশ্লিষ্টরা। আর বিপুল সংখ্যক পর্যটকদের নিরাপত্তা দিতে হিমশিম খাচ্ছে ট্যুরিস্ট পুলিশ।

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সী-ইন পয়েন্ট। পর্যটকদের পদচারণায় কানায় কানায় পূর্ণ সাগর তীর। শুধুমাত্র সী-ইন পয়েন্টেই নয়, সমুদ্র সৈকতের বাকি ৮টি পয়েন্টই আছে একই অবস্থা।

ঈদের সরকারি ছুটি শেষ হলেও এখনো লাখো পর্যটকে মাতোয়ারা এখানকার সমুদ্র সৈকত। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসা পর্যটকরা আনন্দ আর হৈ-হুল্লোড়ে মেতেছেন। শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ সব বয়সের মানুষের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে সাগর তীর। সমুদ্র সৈকতে স্নান, ঘুরে বেড়ানো, ছবি তোলা, বিচ বাইক ও জেড স্ক্রীতে কাটছে তাদের প্রতিটি মুর্হুত।

বিপুল সংখ্যক পর্যটক আসাতে খুশি কক্সবাজার হোটেল মালিক সমিতির প্রচার সম্পাদক আবু তালেব শাহ।

কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খন্দকার ফজলে রাব্বী জানালেন, ঈদের ছুটিতে বিপুল সংখ্যক পর্যটকের নিরাপত্তা দিতে তাদের হিমশিম খেতে হচ্ছে।

হোটেল মালিক সমিতির দেয়া তথ্য মতে, ঈদের ছুটিতে গত দু’দিনে কক্সবাজারে ৩ লাখের অধিক পর্যটক এসেছেন। পর্যটকদের আগমন এ সপ্তাহ পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

পালংনিউজ টুয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।