আমার বড় ভাই

ইমরুল কায়েস চৌধুরী♥
অামার রক্তের সম্পর্ক না হয়েও তিনি আমার রক্তের সম্পর্কের চেয়ে বেশি আপন। বড় ভাই  অভিভাবকে হিসেবে তার নির্দেষনা,  পরামর্শ ও শাসন আমার জীবনের সবচেয়ে বড় পাওনা। একজন মানুষ কতটা বিনয়ী ও মার্জিত হতে পারে তা ভাইয়ের পাশে না থাকলে কখনো জানা হতোনা।

আমার গুরু…,
একজন সাংবাদিকের কতটুকু মাথা ঠান্ডা রাখতে হয়, কিভাবে সকল শ্রেনী- পেশার মানুষের খুব কাছে যাওয়া যায়, কি ভাবে ঘটনার গভীরে যেয়ে বেতিক্রম কিছু বের করে আনা যায় আর সাংবাদিকতা কত বিশাল দায়িত্বশীলতার কাজ, তার সব ভাইয়ের সাথে থেকে কাজ না করলে কখনোই শেখা বা জানা হতোনা।

সংবাদিকতা করতে যে প্রচন্ড সাহসিকতার দরকার, সাংবাদিকতার নেশা কতো মারাত্মক ও কাজের প্রতি এতোটা সিনসিয়ার ও পরিশ্রমী হতে হয় তাও ভাইকে না দেখলে বা ভাইয়ের পাশে না থাকলে বুঝবেননা। কাজের জন্য পরিবার পরিজন ফেলে দিনের পর দিন, মাসের পর মাস সুন্দরবনের গভির জঙ্গলে, বান্দরবন- কক্সবাজারে পাহাড়ে পাহাড়ে, দেশের বিভিন্ন হাওড়ে বা সিমান্তে অবিরাম ছুটে চলছেন।

ভাইয়ের সাংবাদিকতার মান, আপনার সাহস, মনোবল ও যোগ্যতার স্বীকৃতি কেউ দিক বা নাদিক তাতে কিছু যায় আসেনা। কারন আমাদের দেশটাই এমন। নিজেরা যোগ্যতা হারানোর ভয়ে অন্যের ভালো কাজের স্বীকৃতি দিতে চাননা বা স্বীকৃতি দিতে বাধা দেন।

তবে ১০০ ভাগ এক জন অসাধারন মানুষ হিসেবে ভাই সবাই হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে।

শুভ জন্মদিন Mohsin Ul Hakim ভাই।
আপনার হাত ধরেই নিরাপদে থাক সুন্দরবন।

পালংনিউজ টুয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।